মাথার পেছনে ব্যথার কারণ - মাথার পেছনে ব্যথা হলে করণীয়

জন্ডিস রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার ১০ টি উপায়প্রিয় পাঠক আপনারা হয়তো মাথার পেছনে ব্যথা হওয়ার কারণ মাথার পেছনে ব্যথা হলে কি করনীয় এ সকল বিষয় নিয়ে জানতে চাচ্ছেন। আজকের এই পোস্টটিতে আমি মাথাব্যথার কারণ এবং মাথাব্যথা কমাতে হলে কি কি করতে হবে সে সকল বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

মাথার পেছনে ব্যথার কারণ - মাথার পেছনে ব্যথা হলে করণীয়

এই পোস্টটিতে আরো আলোচনা করেছি মাথার পিছনে ব্যথা হওয়ার কারণ মাথার তালুতে ব্যথা হওয়ার কারণ এবং ব্যথা হলে কি কি করণীয় তাই মাথাব্যথা সংক্রান্ত সকল গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য অনুরোধ রইল।

মাথার পেছনে ব্যথার কারণ কি

আমাদের দৈনন্দিন জীবন  কাজকর্ম চিন্তা টেনশন এর মধ্যে দিয়ে কাটে। কাজ এর চিন্তা টেনশনের ফলে মাথায় ব্যথা বা যন্ত্রনা শুরু হয়। কিন্তু আমরা প্রায় সকলেই এগুলোকে অতটা গুরুত্ব দিয়না। কিন্তু মাথার ব্যথার মধ্যে অনেকগুলো উপসর্গ রয়েছে যেমন মাথার পেছনে ব্যথা হওয়ার অনেকগুলো  কারণ রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ মাইগ্রেনের ব্যথা কমানোর জন্য কি কি করনীয়

তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক মাথার পেছনে ব্যথা হওয়ার নির্দিষ্ট কারণ গুলো কি কি:

  • মাইগ্রেন এর জন্যঃ অনেক সময় মাইগ্রেনের ব্যাথা মাথার পেছনের দিকে অনুভূত হয়। এই সময় মাথা ঝিমঝিম করে বমি বমি ভাব হয়। তাই যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে তাদেরকে এই বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।
  • চিন্তাঃ মাথার পেছনে ব্যথা হওয়ার আসল কারণ হলো চিন্তা। অধিক চিন্তা করার ফলে মাথার পেছনে ব্যথা হয়। চিন্তা জনিত কারণে মাথার পেছনের ব্যথা ২ ঘন্টা পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমের অভাবঃ আমাদের শরীরকে সুস্থ স্বাভাবিক রাখতে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম খুব প্রয়োজন। যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম না হয় তবে মাথার পেছনে ব্যথা হয়।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ পানির অভাবঃ শরীরের 98 ভাগ হচ্ছে পানি। তাই শরীরের বিভিন্ন কোষ কে সতেজ রাখতে পানি প্রয়োজন। পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি না খাওয়ার ফলে মাথার  পিছনে ব্যথা হয়। 
  • সাইনাস এর কারণেঃ সাইনাস হল আমাদের ত্বকের ভেতরে অবস্থা ছোট ছোট বায়ু কুঠুরি। যখন ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয় তখন মাথায় পেছনে এবং সামনে ব্যথা ওঠে।
  • ক্লাসটার হেডেকঃ ক্লাসটা নেড়েচেড়ে মাথার পেছনে তীব্র ব্যথা অনুভূত হয়। মাথাব্যথার সাথে সাথে নাক দিয়ে পানি পড়া এবং চোখেও ব্যথা হয়। ক্লাস্টার হেডেকের মাথাব্যথা প্রায় ৩ মাস থেকে ৪ মাস পর্যন্ত হতে পারে। 

উপরে বর্ণিত কারণ গুলোর কারণে মাথার পেছনে ব্যথা অনুভূত হয়। মাথার পেছনে ব্যথা হওয়ার কারণে কোন মারাত্মক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না কিন্তু তবু ব্যাথার মাত্রা তীব্র হলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া দরকার।

মাথার পিছনে ব্যথা হলে করণীয়

মাথার পিছনের ব্যাথা হলে কিভাবে মাথা ব্যথা দূর করা যায় সেই সকল বিষয়গুলোর নিচে বিস্তারিত দেওয়া হল,

  • মাথার পিছনে ব্যথা অনুভূত হলে মাথায় মেসেজ করলে ব্যথা কমে।
  • টেনশনের কারণে যেহেতু মাথা ব্যথা হয় তার জন্য টেনশন মুক্ত থাকার চেষ্টা করতে হবে।
  • অধিক পরিমাণ পানি খেতে হবে পানি খাবার ফলে শরীর কোষগুলো সতেজ থাকে। ফলে মাথা ব্যথা কমে যায়।
  • যে সকল ব্যক্তির মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে তারা তাদের প্রেসক্রিপশনের ওষুধ গুলো নিয়মিত সেবন করতে থাকবেন তাহলে মাথাব্যথা হবে না।
  • মাথাব্যথা দূর করার জন্য ওভার  দ্যা কাউন্টার দিয়ে মাথাব্যথা উপশম করা যায়।
  • মাথার ব্যথা কমানোর জন্য আন্টি ইনফ্লামেটরি ওষুধ সেবন করা যেতে পারে।
  • দ্রুত মাথাব্যথা থেকে উপশম পেতে ঘাড়ে গরম বা ঠান্ডা কম্প্রেসর  দিয়ে মেসেজ করতে হবে।
  •  ট্রিপটান, মট্রিন এবং এর সাথে প্রেসক্রাইব করা ওষুধ সেবন করলে মাথা ব্যথা থেকে দ্রুত উপশম পাওয়া যায়।
  • মাথার পেছনে ব্যথা অনুভব হলে আলো থেকে দূরে থাকবেন বিশেষ করে ঘরের বাল্ব বন্ধ করে ঘুমানোর চেষ্টা করবেন তাহলে দেখবেন মাথা ব্যথা কমে গেছে। 
  • সুস্থ রাখার জন্য এবং সকল ধরনের মাথাব্যথা দূর করার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করার অভ্যাস তৈরি করে তুলতে হবে।
  • ডিহাইড্রেশন এর কারণে মাথার পেছনে ব্যথা অনুভূত হয় তাই শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করুন।

মাথার তালুতে ব্যথার কারণ

মাথাব্যথা তো অনেকগুলো ধরন রয়েছে যেমন মাথার পেছনে ব্যথা ঠিক তেমনি মাথার তালুতে ব্যথা হওয়া একটি মাথা ব্যথার রোগ। ল্যাপটপে কাজ করতে করতে হঠাৎ স্ক্রিনের দিকে না তাকাতে পারা, ফোন এর ওয়ালপেপার এর দিকে না তাকাতে পারা এই সকল কারণ মাথার তালুতে ব্যথা হওয়ার কারণে হয়।
তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাযক মাথার তালুতে ব্যথা কি কি কারণে হয়,
  • দীর্ঘক্ষণ ধরে ল্যাপটপের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে কাজ করার কারণে মাথার তালুতে ব্যথা হয়।
  • টিভি দেখার কারণে টিভি থেকে অতি বেগুনি রশ্মি আমাদের মস্তিষ্কে প্রভাব ফেলে তাই মাথার তালুতে ব্যথা হয়।
  • অধিক চিন্তা টেনশন করার কারণে মাথার তালুতে ব্যথা হয়।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম না হওয়ার কারণে মাথার তালুতে ব্যথা হয়, পাশাপাশি বমি হয় এবং শরীরে ক্লান্তি ভাব আসে।
  • মানসিক চাপ এর কারণে মাথার তালুতে প্রচণ্ড পরিমাণ ব্যথা অনুভূত হয়।
উপরে বর্ণিত কারণ গুলো র জন্য মাথার তালুতে ব্যথা অনুভূত হয় এবং এই ব্যথা প্রায় কয়েক ঘন্টা যাবৎ স্থায়ী হয়। মাথাব্যথা আমাদের প্রায় সকলেরই হয় তবুও মাথা ব্যথার বিষয়ে একটু সতর্ক থাকা দরকার না হলে অনেক বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে।

মাথার তালুতে ব্যথা হলে করণীয়

মাথার তালুর বেথা দূর করতে হলে আপনাকে পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশ্রাম নিতে হবে। মাথার তালুতে ব্যথা আলোক সংবেদনশীল হয় তাই ব্যথা হলে ঘরের বাল বন্ধ করে অন্ধকার ঘরে বিশ্রাম নিতে হবে। যখন মাথার তালুতে ব্যথা হতে হবে আপনি চেষ্টা করবেন ঘুমিয়ে পড়ার।

আরো পড়ুনঃ রক্তে বিলিরুবিন  এর পরিমাণ বেড়ে গেলে কি হয়

মাথার তালুর ব্যাথার জন্য অনেকে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ খায়। কিন্তু মাথা ব্যথা দূর করার জন্য দীর্ঘদিন যাবত কোন ওষুধ সেবন করা স্বাস্থ্যকর নয়। দীর্ঘদিন যাবত ব্যথা নাশক ওষুধ ব্যবহার করলে পরবর্তীতে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

তাই মাথায় তালুতে ব্যথা দূর করতে হলে স্বাস্থ্যসম্মত জীবন যাপন করতে হবে। বিভিন্ন রকমের  চিন্তা টেনশন এগুলো থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করতে হবে। পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করতে হবে আলো বাতাস পূর্ণ গৃহে বসবাস করতে হবে তবে মাথার তালুর   থা কমবে।

মাথার ডান পাশে ব্যথার কারণ কি

মাথার ডান পাশে ব্যথা হওয়ার কারণ কি এগুলো আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক মাথার ডান পাশে ব্যথা হওয়ার কারণগুলো,

  • গরম লাগা বা ঠান্ডা লাগার কারণে হঠাৎ করে মাথায় ব্যথা হয় তখন আমরা হাতের নাগালে পাওয়া ওষুধ সেবন করে থাকি। দীর্ঘদিন যাবত এরকম ওষুধ সেবন করার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসেবে মাথার ডান পাশে ব্যথা হয়।
  • ট্রাইজেমিনাল নিউরালজিয়ার কারণে আমাদের স্নায়ু  এবং মাথার ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হয় বিশেষ করে মাথার ডান পাশের স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হয় যার কারণে ডান পাশে ব্যথা হয়।
  • ব্রেন এ পর্যাপ্ত পরিমাণ রক্ত সরবরাহ না পাওয়ার ফলে মাথার ডান পাশে ব্যথা হয়।
  • ক্লান্তি পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমের অভাব এর কারণেও মাঝার ডান পাশে ব্যথা হয়।
  • মাথার টিউমার এর কারনে ব্রেনের স্নায়ু গুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয় যার কারণে মাথার ডান পাশে ব্যথা অনুভূত হয়।
  • উচ্চ রক্তচাপের কারণেও মাথার ডানপাশে ব্যথা হয়।
  • ব্রেনের ইনফেকশন এর কারনেও মাথার ডান পাশে প্রচন্ড পরিমাণ ব্যথা হয়।
  • সাইনাস এর কারনেও মাথায় পেছনে এবং পুরো মাথাতে প্রচণ্ড পরিমাণ তীব্র ব্যথা অনুভব হয়।

উপরোক্ত বর্ণিত কারণ গুলোর জন্য মাথার ডান পাশে তীব্র ব্যথা অনুভূত হয় তাই আমাদেরকে আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম পানি পান করতে হবে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে ঠান্ডা লাগানো যাবে না তাহলে ডান পাশের ব্যথা থেকে উপশম হবে।

মাথার ডান পাশে ব্যথা হলে করণীয়

যে কোন রকমের মাথা ব্যথার জন্য দুশ্চিন্তা মানসিক সমস্যা এবং অধিক পরিমাণ টেনশন। দুশ্চিন্তা আমাদের শরীরের জন্য খুব খারাপ কারণ এটি ধীরে ধীরে আমাদের মানসিক ভারসাম্য নষ্ট করে। এমনকি অধিক চিন্তা করার কারণে ব্রেনের নার্ভের চাপ পড়ে যে কারণে অনেকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে পাগল পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে।

মাথার ডান পাশে ব্যথা হওয়ার প্রধান কারণ হলো দুশ্চিন্তা তাই সবসময় দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকতে চেষ্টা করতে হবে। আপনি যদি চিন্তা মুক্ত জীবন যাপন করেন তবে কখনোই আপনার মাথার ডান পাশে ব্যথা হবে না। মাথার ডান পাশের ব্যথা দূর করনে টাটকা ফর্মুল এবং সবজি খেতে হবে।


উজ্জ্বল রক্তচাপের কারণে যেহেতু মাথার ডান পাশে ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এবং এখান থেকে পরবর্তীতে স্ট্রোকের  সম্ভাবনা রয়েছে। অধিক তেল এবং মসলাযুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমাতে হবে এবং হাটাহাটি বা ব্যায়াম করার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

মাথার পিছনে বাম পাশে ব্যথা হওয়ার কারণ

মাথার পেছনে বাম পাশে ব্যথা হওয়ার কারণগুলো হলো,

  • সাইনাসঃ সাইনাস হলো ত্বকের অভ্যন্তরে অবস্থিত বায়ু কুঠুরি।  কুঠুরি গুলো যদি ছত্রাক এবং ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সংক্রমিত হয় তবে মাথার পিছনে তীব্র ব্যথা অনুভূত হয়।
  • ঘুমের অভাবঃ পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম না হলে মাথার পিছনে ব্যথা হয়।
  • বাত ব্যথার কারণেঃ বয়স্ক মহিলাদের বাতের ব্যথার সমস্যা রয়েছে এক সময় দেখা যায় যে এ বাত ব্যথার ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসেবে মাথার পেছনের বাম পাশে তীব্র ব্যথা হয়।
  • মাইগ্রেন এর কারণঃ মাইগ্রেনের সমস্যা হয় আলোর ওপ্র তীব্র  সংবেদনশীল এর কারণে। চোখে তীব্র আলো ছটা লাগলে মাথায় ব্যথা অনুভূত হয়।
  • ক্লাসটারঃ ক্লাসটার হেডেক অ্যাটাকের কারণেও মাথার পেছনে বাম পাশে ব্যথা হয়।
  • ল্যাপটপ চালানোঃ ল্যাপটপের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকলে ল্যাপটপ থেকে রশ্মি মাথার স্নায়ুতে তীব্র প্রভাব ফেলে যার কারণে মাথার পেছনে ব্যথা অনুভূত হয়।
  • ডিহাইড্রেশন এর কারণেঃ পানির অপর নাম জীবন একথা আমরা সবাই জানি তাই আমার নিয়মিত যদি পানি খায় এবং আমাদের শরীকে হাইড্রেটেড রাখি তাহলে আমাদের মাথা ব্যথা থেকে উপশম পাওয়া যাবে।
  • চোখের সমস্যাঃ অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে যাদের চোখের সমস্যা রয়েছে তাদের মাথার পেছনে ব্যথা অনুভূত হয়। দীর্ঘক্ষণ যাবৎ পড়াশোনা বা একদিকে বিরতিহীন ভাবে তাকিয়ে থাকার কারণে  চোখের সমস্যা হয় এবং পরবর্তীতে এটি মাথার পেছনে ব্যথা মাধ্যমে উপসর্গের প্রকাশ করে।
  • টেনশন এর কারণেঃ যেকোনো রকমের মাথাব্যথা আসল কারণ হলো টেনশন। কোন সুস্থ যেভাবে মানুষদের প্রতিনিয়ত টেনশন বা দুশ্চিন্তায় ভোগেন তবে তার শরীরে স্বাভাবিক থাকবে না। তাই আমাদেরকে যতটা সম্ভব দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকতে হবে।

মাথার পিছনে বাম পাশে ব্যথা হলে করণীয়

মাথার পিছনে বাম পাশে ব্যাথা অনুভূত হলে ব্যথা দূর করার কারণে আমাদের যে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে সেগুলো হল,

  • প্রতিদিন অন্তত কমপক্ষে ৬ থেকে ৭ ঘন্টা ঘুমাতে হবে। পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম মাথাব্যথা সারাতে খুবই উত্তম।
  • প্রচুর পরিমাণ পানি খেতে হবে এবং শরীরকে হাইড্রেটেড ও সতেজ রাখতে হবে।
  • শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখতে হবে এবং তার জন্য হাঁটাচলা বা ব্যায়াম করার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।
  • স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে এবং  সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হতে হবে।
  • ল্যাপটপ বা স্ক্রিনের দিকে দীর্ঘক্ষণ তাকিয়ে থেকে কাজ করার ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর বিরতি নিন।
  • রাত জেগে পড়াশোনা করার অভ্যাস অনেকের রয়েছে তাই তাদের রাত জাগাটা কমিয়ে ভরে উঠে পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।
  • যে সকল ব্যক্তির চশমা ব্যবহার করেন তাদেরকে চশমার পাওয়ার সম্বন্ধে পর্যাপ্ত জ্ঞান থাকতে হবে এবং নিয়মিত কিছুদিন পরপর ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়ে চোখের পাওয়ার পরীক্ষা করতে হবে।
  • অনেকে রয়েছেন যারা বিভিন্ন রকমের নেশা জাতীয় দ্রব্য অ্যালকোহল ইয়াবা এগুলো সেবন করে থাকেন । তারা যদি মাথাব্যথার ভোগান্তি থেকে রেহাই পেতে চান তবে এগুলো খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন।
  • সব সময় নিজেকে চিন্তা মুক্ত রাখার চেষ্টা করবেন। চিন্তা মুক্ত মস্তিষ্ক খুবই প্রয়োজন মাথাব্যথা সারানোর জন্য।
  • যাদের ঠান্ডা লাগার কারণে মাথা ব্যথার সমস্যা রয়েছে তাদেরকে খেয়াল রাখতে হবে যেন ঠান্ডা না লাগে।
  • আমাদের মধ্যে অনেকে রয়েছেন যাদের অ্যালার্জিজনিত কারণে মাথাব্যথা হয় তারা তাদের খাওয়ার তালিকা থেকে এনার্জি জনিত খাবার পরিহার করুন।
  • যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে তারা মাইগ্রেনের ওষুধ নিয়মিত সেবন করতে থাকুন।
  • উচ্চ রক্তচাপের কারণে মাথার বাম পাশে ব্যাথা অনুভূত হয় তাই নিয়মিত উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার ওষুধ সেবন করুন নয়তো পরবর্তী স্ট্রোক হতে পারে।

লেখকের মন্তব্য

আজকের এই পোস্টটিতে মাথাব্যথা কারন এবং মাথাব্যথা থেকে উপশম পাওয়ার সকল বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আপনি যদি আমার এই পোস্টটি পড়ে উপকৃত হন তাহলে অবশ্যই একটি কমেন্ট করে জানাবেন এবং নিয়মিত ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

স্বাগতম বিডিরনীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url