ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় - ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

 ডায়াবেটিস হলে কি কি সবজি খাবেন না

প্রিয় পাঠক বন্ধু আপনার কি ডায়াবেটিস হয়েছে ? আপনি কি চিন্তা করছেন যে ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় ? ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায় ? এ সকল চিন্তা ধারা যদি আপনার মনের মধ্যে ঘুরপাক খায় তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনি পড়তে থাকুন কারণ আজকের আর্টিকেলটির আলোচনার বিষয় হলো ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় সেগুলোর বিস্তারিত তথ্য।

ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় -ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনারা আরো জানতে পারবেন যে খালি পেটে আপনারা যখন ডায়াবেটিস পরিমাপ করেন খালি পেটে কত হলে ডায়াবেটিস নরমাল, ভরা পেটে কত হলে ডায়াবেটিস নরমাল হয় এছাড়াও গর্ভবতী মহিলার ডায়াবেটিস কত হলে সে নিরাপদ ইত্যাদি বিষয়।

পোস্ট সুচিপত্রঃ ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় -ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

.

ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয়

ডায়াবেটিস হলো এমন একটি রোগ যখন আপনার রক্তের সুগার এবং শর্করার পরিমাণ বেড়ে যায়। সারা প্রতিবছর সারা বিশ্বে প্রায় পঞ্চাশ কোটি মানুষের ডায়াবেটিস শনাক্ত হয়। এই ডায়াবেটিস সনাক্ত হওয়ার পর যদি কেউ সতর্কতা অবলম্বন করে তাহলে সে তার বাকি জীবনটুকু ভালোভাবে কাটাতে পারবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ২৪ সালে জানিয়েছেন যে, ডায়াবেটিস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ৬০ লক্ষ। এ ডায়াবেটিস থেকে রক্ষা পেতে হলে আপনাদেরকে আমাদেরকে আমাদেরকে সকলকে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। যখন আপনার শরীর ডায়াবেটিস শনাক্ত হবে তখন বিভিন্ন রকমের সমস্যা হয় তবে ডায়াবেটিসের প্রকারভেদে সমস্যাগুলো উপসংগুলো দেখা দেয়।

ডায়াবেটিস দুই প্রকার টাইপ ১ টাইপ ২ । 

টাইপ ১ঃ মানবদেহের অঙ্গ যকৃতের আইলেটস অব ল্যাঙ্গার হ্যাংস থেকে যখন ইনসুলিন উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় তখন শরীরে শর্করা এবং চিনির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। আমরা যে সকল খাবার গ্রহণ করে থাকে সেগুলো আমাদের পাকস্থলীতে গিয়ে সরল প্রক্রিয়ায় ভেঙে চিনি এবং শর্করাতে রূপান্তরিত হয়।

টাইপ ২ঃ টাইপ টু ডায়াবেটিস একটি মানুষের তখন হয় যখন তার শরীরে ইনসুলিন এর পরিমাণ বেড়ে যায় অর্থাৎ আইল্যান্ডস অব ল্যাঙ্গার হ্যান্ডস থেকে অধিক পরিমাণ ইনসুলিন উৎপন্ন হয় যার কারণে শরীরের সঠিক কাজ করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। তখন ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ওষুধ সেবন করতে হয়।

এই দুই ধরনের ডায়াবেটিস যখন কোন ব্যক্তির হয় তখন তার শরীরে অনেক সমস্যা হয় তাহলে চলুন এখন জেনে নেই যে ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয়,

  • ডায়াবেটিস হলে প্রচুর পরিমাণ তৃষ্ণা পায়
  • শরীরের ওজন দ্রুত কমতে থাকে।
  • ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া।
  • প্রস্রাব এর চাপ আসার পরে দ্রুত প্রস্রাব করতে না গেলে প্রস্রাব বের হয়ে যাওয়া
  • শরীরের ব্যথা
  • শরীরের কোন অঙ্গে যদি কেটে যায় অথবা ঘা হয়ে যায় তাহলে শুকাতে অনেক সময় লাগা।
  • ডাইবেটিস হলে আস্তে আস্তে চোখ কম দেখা।
  • ডায়াবেটিস হলে শ্রবন শক্তি কমে যাওয়া।
  • অল্পতেই ক্লান্ত অনুভব করা.
  • খাওয়াতে অরুচি
  • গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা
  • সব সময় জ্বর লেগে থাকা
  • ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় তার মধ্যে প্রধান সমস্যা হলো এটি ধীরে ধীরে শরীরের সকল অঙ্গ কে ক্ষতিগ্রস্ত করা।

ডায়াবেটিস হলো এমন একটি রোগ যাকে ডাক্তাররা সকল রোগের মূল রোগ বলে চিহ্নিত করেছেন। ডায়াবেটিস রোগটি তাৎক্ষণিক কোন ক্ষতি করে না বরং ধীরে ধীরে কিডনি,লিভার, চোখ, জরায়ু, সকল অঙ্গানুকে অকেজো করে তোলে।এই মারাত্মক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া পেতে হলে আমাদের সকলের প্রয়োজন সতর্কতা।

পুরুষের ডায়াবেটিস হলে কি সন্তান হয় ?

ডায়াবেটিসের রোগ শুধু যে মহিলাদের হয় সেরকম কথা নাই অল্প বয়সে পুরুষদেরও ডায়াবেটিস হয়।। এখন চিন্তার বিষয় হলো অল্প বয়সী পুরুষের যদি ডায়াবেটিস হয় তাহলে সেই পুরুষের কি প্রজনন ক্ষমতা কমে যায়। হ্যাঁ বন্ধুরা এখন আমরা আলোচনা করব ডায়াবেটিস হলে পুরুষের সন্তান হয় নাকি হয় না?

আরও পড়ুনঃ পুরুষের প্রস্রাবের রাস্তায় জ্বালাপোড়া কেন হয় ?

টাইপ-১ অথবা টাইপ- ২ যে কোনো প্রকার ডায়াবেটিসে শরীরের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। অল্প বয়সে পুরুষের যদি ডায়াবেটিস শনাক্ত হয় তাহলে সেই পুরুষের শুক্রাণুর নিষিক্ত হওয়ার সম্ভাবনা কিছুটা কমে যায়। কিন্তু এমনটা কথা নেই যে পুরুষের ডায়াবেটিস হলে সন্তান হবে না। 

পুরুষ ডায়াবেটিস আক্রান্ত হলে তার বীর্যপাত দ্রুত ঘটে এবং বীর্যের শুক্রাণুর কার্যক্ষমতা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। এছাড়াও ডায়াবেটিস আক্রান্ত পুরুষের সন্তানের ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আশা করছি এতক্ষণে আপনারা আপনাদের কাঙ্খিত প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেছেন যে, পুরুষ মানুষের ডায়াবেটিস হলেও তার সন্তান হবে।

ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

ডায়াবেটিস রোগটি শুধু যে নিম্ন আয়ের দেশ গুলোতে অথবা গ্রামে বসবাস করে মানুষের হয় সেরকম নয়। পৃথিবীর সকল উন্নত আয়ের দেশ গুলোর মানুষও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে এবং সকলের মনে একটি প্রশ্ন যে ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায় এবং ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয়?

ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় -ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

ডাক্তারা জানিয়েছেন যে, প্রতিটি মানুষের মধ্যেই ডায়াবেটিস রয়েছে তবে সেটা স্বাভাবিক। কিন্তু যখনই কোন মানুষের রক্তে ইনসুলিন প্রয়োজনের চেয়ে বেশি উৎপন্ন হয় এবং প্রয়োজনের চেয়ে ইনসুলের মাত্রা কমে গেলে সেটি উপসর্গের মাধ্যমে বোঝা যায় এবং তখনই ডায়াবেটিস পরীক্ষা করে জানা যায় যে ডায়াবেটিস হয়েছে।

ডাক্তার না জানিয়েছেন যে কোন ব্যক্তির শরীরে যদি ডায়াবেটিস 40 mg/dl এর নিচে হয় তাহলে সেই ব্যক্তির যেকোনো সময়ে মাথা ঘুরে অথবা অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে। এমনকি ডাক্তাররা জানিয়েছেন যে শরীরে যদি সুগারের পরিমাণ একেবারে কমে যায় তাহলে সেই ব্যাক্তি স্ট্রোক অথবা হার্ট অ্যাটাক করতে পারে।

আবার যদি কোন ব্যক্তি শরীরে ডায়াবেটিস এর পরিমাণ 400 mg/dl এর বেশি হয় তাহলে সেই ব্যক্তিও হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোক করতে পারে। এখন নিশ্চিতভাবে এটা বলা কঠিন যে ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়।

 উদাহরণস্বরূপ আমি আপনাদেরকে একটু জানাই, আমার নানীর ডায়াবেটিস এর পরিমাণ 24 কিন্তু আলহামদুলিল্লাহ তিনি এখনো সুস্থ আছেন। কিন্তু আমার কাকে ডায়াবেটিসের পরিমাণ ছিল বেশ কিন্তু তবুও তিনি হঠাৎ করে অজ্ঞান হয়ে যান এবং ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার আগেই রাস্তায় তিনি মারা যান।

উপরে আমার নানি এবং কাকির স্বাস্থ্য অবস্থা থেকে বুঝতে পারা যায় যে ডায়াবেটিস এর পরিমাণ কত হলে মানুষ মারা যাবে এটা বলা কঠিন কিন্তু অবশ্যই আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে যে ডাইবেটিস যেন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য আমাদের উচিত সপ্তাহে একদিন করে ডায়াবেটিস পরিমাপ করা। আর বর্তমানে ডিজিটাল প্রযুক্তির যুগ তাই বাড়িতেই গ্লুকোমিটারে ডায়াবেটিস মাপা হয়। এখন অনেকেই প্রশ্ন করেন যে ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে সেটাকে নরমাল বলে বিবেচনা করা হয়।

আপনি যদি খাবার খাওয়ার আধা ঘন্টা অথবা ১ ঘন্টা পরে গ্লুকোমিটারের ডায়াবেটিস পরিমাপ করেন তাহলে আপনার নরমাল ডায়াবেটিস পয়েন্ট ৭-৯। অর্থাৎ ভরা পেটে ডায়াবেটিস এর পয়েন্ট যদি ৭ থেকে ৯ এর মধ্যে হয় তাহলে আপনার ডায়াবেটিস নরমাল।

খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

ডায়াবেটিস ভরা পেটে মাপার চেয়ে খালি পেটে পরিমাপ করা অতি উত্তম। খালি পেটে আপনি যদি গ্লুকোমিটারে ডায়াবেটিস পরিমাপ করেন তাহলে আপনার ডায়াবেটিসের পরিমাপ কত হলে সেটা নরমাল এটা অবশ্যই আপনাকে জেনে থাকতে হবে।

খালি পেটে গ্লুকোমিটারে ডায়াবেটিস পরিমাপ করলে সে ডায়াবেটিস এর পয়েন্ট যদি ৪-৬ এর মধ্যে হয় তাহলে আপনি নিরাপদ। অর্থাৎ খালি পেটে ডায়াবেটিস এর পয়েন্ট যদি ৪,৫ অথবা 6 হয় তাহলে আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আছে এবং এটি নরমাল।

গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

গর্ভাবস্থায় গর্ভবতী মা যদি ডায়াবেটিস আক্রান্ত হন তাহলে একটু সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন কারণ গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস হলে মা এবং শিশু দুজনের স্বাস্থ্যঝুঁকির সম্ভাবনা থাকে। এখন অনেকেই প্রশ্ন করেন যে গর্ভবতী অবস্থায় ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল?

খালি পেটে গর্ভবতী মহিলার ডায়াবেটিস এর পয়েন্ট যদি  4 ml/dg হয় তাহলে এই মহিলার ডায়াবেটিস নরমাল। কিন্তু কোন কারণে যদি খালি পেটে গর্ভবতী মহিলার ডায়াবেটিস এর পয়েন্ট 8-10 ml/dg পার হয়ে যায় তাহলে সে ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ইনসুলিন নিতে হবে।

ডায়াবেটিস রোগী কতদিন বাঁচে

ডায়াবেটিস রোগ হলে সবাই ভাবে যে ডায়াবেটিস রোগী বেশিদিন বাঁচবে না। এমনকি যিনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন তিনিও মনে মনে চিন্তা করেন যে আমি মনে হয় আর বেশি দিন বাঁচবো না। এই ধারণাটি আপনাদের একেবারেই ভুল কারণ আপনি যদি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখেন আল্লাহর রহমতে আপনি আরো দীর্ঘদিন পৃথিবীতে থাকতে পারবেন।

এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যাদের ডায়েবেটিস থাকা সত্ত্বেও সুস্থ মানুষের থেকে বেশি দিন বেঁচে রয়েছেন। তাই আপনি বেশিদিন বাঁচবেন না বলে ভেতর থেকে শেষ হয়ে যাওয়ার চেয়ে হাসিখুশি থাকবেন, খাওয়ার তালিকার ওপর একটু নজর দিবেন যেমন যেসকল খাবার খেলে ডায়াবেটিস বেড়ে যায় সে সকল খাবার পরিহার করবেন।

আপনি চেষ্টা করবেন মিষ্টি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলার এবং বিভিন্ন শাক সবজি ফলমূল খাবেন। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ রাখার জন্য আপনি নিয়মিত হাঁটাচলা,ব্যায়াম করবেন। আপনি যদি নিয়ম মেনে চলেন তাহলে ইনশাআল্লাহ আপনি সুস্থ থাকবেন।

শেষ কথা ।ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় -ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

আজ প্রিয় পাঠক বন্ধু আজকের এই পোস্টটিতে আমি ডায়াবেটিস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি এবং ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয় ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট হলে নিরাপদ ইত্যাদি বিষয়ে আপনাদেরকে জানানো চেষ্টা করেছি।

আজকের আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা যদি উপকৃত হন তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং আপনি যদি ডায়াবেটিস  সংক্রান্ত কিছু জানতে চান তাহলে জানাবেন আমি আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব ধন্যবাদ।


এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

স্বাগতম বিডিরনীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url