ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি - ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি

কোন ভিটামিনের অভাবে ঘুম কম হয় জেনে নিনভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য খুব প্রয়োজনীয় উপাদান। কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা যে ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলো। আপনারা যারা জানেন না যে ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলো তারা আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে জানতে পারবেন ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা বা ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি।

ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি - ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি

এছাড়াও আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়, ভিটামিন ডি এর অভাব হলে করণীয়, ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নাম এবং ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি। আপনি যদি ভিটামিন ডি এর উৎস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।

পোস্ট সুচিপত্রঃ ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি - ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি

.

ভুমিকা - ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি - ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি

শরীরকে সুস্থ এবং স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজন পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি। শরীরে যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি উৎপাদন না হয় তবে শরীরে বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা দেয় যেমন বিষণ্ণতা, ওজন বেড়ে যাওয়া, হজমের সমস্যা, চুল পড়ে যাওয়া ইত্যাদি । এ সকল সমস্যা ছাড়াও আরো জটিল ধরনের সমস্যা দেখাতে পারে যদি আপনার শরীরে ভিটামিন ডি পর্যাপ্ত পরিমাণ না থাকে।

শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি এর সরবরাহের জন্য প্রয়োজন ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি খাওয়া। কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা যে ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি বাভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা কোনগুলো। চিন্তার কোন কারণ নেই কারণ আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে জানাবো যে ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি এবং ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলা যেগুলো খেলে আপনার শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব দূর হয়ে যাবে।

ভিটামিন ডি এর অভাবে কি হয়- ভিটামিন ডি এর অভাবজনিত লক্ষণ

ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলো জালানোর পূর্বে প্রথমেই আপনাদেরকে জানিয়ে দি যে ভিটামিন ডি এর অভাবে কি হয় বা ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়। ডাক্তাররা জানিয়েছেন যে শরীরের জন্য সবথেকে কার্যকরী ভিটামিন হলো ভিটামিন ডি। কোন কারণে যদি শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি না থাকে তাহলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং কাজ করার সিস্টেমে ব্যাঘাত ঘটে।

আপনারা প্রায় সময় জানতে চান যে ভিটামিন ডি এর অভাবে কি হয়। ভিটামিন ডি এর অভাবে মাজার এবং মেরুদন্ডের হার ক্ষয় হতে থাকে। এছাড়াও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের (Bone narrow) বা জয়েন্টের হাড় ক্ষয় হয়ে যায় শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি এর অভাবে।

আরও পড়ুনঃ   কি খেলে ডায়াবেটিস দ্রুত কমে জেনে নিন

ভিটামিন ডি এর অভাবে মাংসপেশীতে ব্যথা অনুভব হয়।এছাড়াও ভিটামিন ডি এর অভাব আপনার শরীরে দেখা দিলে আপনার খিদে কমে যাবে যার কারণে শরীরের ওজন দ্রুত কমতে থাকবে। ভিটামিন ডি এর অভাবে রিকেট রোগ হতে পারে যার ফলস্বরূপ আপনার হাত বা চিকন হয়ে যাবে এবং শরীরে শক্তি পাবেন না। ভিটামিন ডি এর অভাবে রক্তে পর্যাপ্ত পরিমাণ হিমোগ্লোবিন উৎপন্ন হতে পারে না যার কারণে রক্তশূন্যতা দেখা দেয়।

ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি

শরীরকে সুস্থ রাখতে হলে ভিটামিন ডি এর কোন বিকল্প নেই। শরীরকে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি এর সরবরাহ দেওয়ার জন্য তিনটি উপায় রয়েছে যেমন ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি, ভিটামিন ডি যুক্ত ফল, ভিটামিন ডি যুক্ত মাছ এগুলো খাওয়া, সানলাইট বা সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন দিয়ে শোষণ করা এবং ভিটামিন ডি এর সাপ্লিমেন্ট নেওয়া।

আমরা আমাদের খাদ্য তালিকায় প্রতিদিন নানা রকমের শাকসবজি খেয়ে থাকে কিন্তু ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোন গুলোর ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি এগুলো আমরা জানি না। তাহলে চলুন আপনাদেরকে এখন জানিয়ে দিয়ে যে ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলো,

ব্রকলিঃ ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজির মধ্যে সবথেকে বেশি ভিটামিন ডি যে সবজিতে রয়েছে সেটি হলো ব্রকলি। তাই শরীরকে সুস্থ রাখতে আপনার খাদ্য তালিকায় ভিটামিন ডি যুক্ত ব্রকলি যুক্ত করুন তালিকাভুক্ত করুন।

মাশরুমঃ মাশরুম হল উচ্চ মাত্রার ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি। প্রতি 100 গ্রাম মাশরুমে প্রায় ২৬৫ গ্রাম ভিটামিন ডি সরবরাহ করে শরীরকে। তাই খাদ্য তালিকায় মাশরুম রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ করে যে সকল ব্যক্তির ভিটামিন ডি এর অভাব রয়েছে।

পালং শাকঃ পুষ্টিবিদদের মতে যে সকল খাবারে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি রয়েছে তার মধ্যে পালং শাক হলো অন্যতম একটি খাদ্য উপাদান। পালং শাক যেহেতু সূর্যের আলোতে বেড়ে ওঠে তাই পালং শাকে ভিটামিন ডি এর পরিমাণ বেশি।

এছাড়াও ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজির মধ্যে রয়েছে পুঁইশাক গাজর, কাঁচা কলা, ঢেঁড়স, শসা, ফুলকপি, টমেটো, বাঁধাকপি, সিম, মূলা, করলা, ঝিঙ্গে, ক্যাপসিকাম,লেটুস, পুঁই শাক, বরবটি ইত্যাদি সবজি গুলো হলো ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি।

ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি - ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা

বাংলাদেশের মেডিকেল রিপোর্ট অনুযায়ী প্রতিবছরে প্রায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার মানুষ ভিটামিন ডি এর অভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে। যার মধ্যে ৭০% মানুষ শুধু ভিটামিন ডি এর অভাবে মৃত্যুবরণ করে থাকে। অকালে ভিটামিন ডি এর অভাবে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আমাদেরকে ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা জানতে হবে এবং ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি সেগুলো জেনে নিয়মিত ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি খেতে হবে।

সমস্যা হলো বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষই জানে না যে ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি বা ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা কোনগুলো। তবে যে সকল ব্যাক্তি তাদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সতর্ক তারা যদি ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কি কি জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন। আজকের এই পোস্ট টিতে আমি ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকা গুলো সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে লিখব যেন আপনারা খুব সহজে বুঝতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ  ডায়াবেটিস রোগীর নিষিদ্ধ খাবার তালিকা

ভিটামিন ডি যুক্ত খাবারের তালিকাঃ লাল মাংস, গরুর দুধ, কলিজা, মুরগির ডিম, চিজ, পনির, মাখন, ঘি, সয়া মিল্ক, মাশরুম, মালটার, কড লিভার অয়েল, ছানা, টক দই, ফার্টিফাইড দুধ, চিনা বাদাম, কাঠবাদাম, গম, যব, বার্লি, ফার্টিফাইড শস্যদানা, সয়াবিন, ডিমের কুসুম, স্যালমন ফিস, টুনা মাছ, বিভিন্ন রকমের সামুদ্রিক মাছ, ছোট মাছ,মলা মাছ তৈলাক্ত চর্বিযুক্ত মাছ, পাঙ্গাস মাছ, ম্যাকরেল মাছ, সারডিন মাছ ইত্যাদি খাদ্য উপাদানগুলো হলো ভিটামিন ডি খাবারের তালিকা উপাদান।

ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নাম

আমাদের শরীরকে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি সরবরাহ করার জন্য ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি খেতে হবে পাশাপাশি ভিটামিন ডি যুক্ত ফল ও খেতে হবে। আমি আপনি বা সকল মানুষ প্রতিদিন অনেক রকমের ফল খান কিন্তু ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নাম যদি বলতে বলা হয় তাহলে কেউ বলতে পারবেনা। তাই খাবার তালিকায় ভিটামিন ডি যুক্ত ফল রাখা প্রয়োজন চলুন আপনাদেরকে ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নাম গুলো জানিয়ে দি,

ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নামঃ কমলা, মালটা, পাকা কলা, চিজ, আনারস, পাকা আম, আপেল,লেবু, ড্রাগন ফল, আঙ্গুর, পাকা পেপে এই সকল ফলে ভিটামিন ডি রয়েছে।

ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়

এতক্ষণ তো আলোচনা করলাম যে ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি কোনগুলা, ভিটামিন ডি যুক্ত ফলের নাম কি ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার তালিকা কি কিন্তু এখন আমরা জানব যে ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়।

আরও পড়ুনঃ     হাত-পা জ্বালাপোড়া করে কোন ভিটামিন এর অভাবে 

আমাদের সকলের জানা প্রয়োজন যা ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়। তাহলে চলুন আর অপেক্ষা না করে আপনাদেরকে জানিয়ে দিই যে ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়,

  • রক্তশূন্যতা বা অ্যানিমিয়া
  • রিকেটস রোগ হয়
  • প্রয়োজনের তুলনায় ক্ষুধা কম লাগা
  • মাংসপেশীতে ব্যথা
  • মানসিকভাবে দুর্বলতা অনুভব করা বা মানসিক অবসাদ
  • অল্পতে ক্লান্তি অনুভব করা এবং রাতে ঘুম না হওয়া
  • ক্ষুধা কম লাগার কারণে স্থূলতা বেড়ে যাওয়া
  • উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা বেড়ে যাওয়া
  • অস্টিওপোরেসিস বা আর্থ্রাইটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়
  • জরায়ুর ক্যান্সার এবং স্তন ক্যান্সার হয়।
  • শরীরের মেদ বেড়ে যায় এবং রক্তে খারাপ কোলেস্টেরলের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে থাকে।
  • যে সকল ব্যক্তির ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের ডায়াবেটিসের মাত্রা বেড়ে যায়।
  • ওজন অত্যাধিক মাত্রায় কমে যায়
  • অতিরিক্ত চুল পড়তে থাকে
  • দাঁতের মাড়ি ফুলে যায় এবং মাড়ি থেকে রক্তপাত ঘটে
  • সহ্য শক্তি বা ধৈর্য শক্তি কমে যায় ফলে অল্পতেই মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়।
  • খাবার হজম হতে সমস্যা দেখা দেয় যার ফলে পাকস্থলীতে বিভিন্ন রকমের গ্যাস্ট্রিক অম্বলজনিত সমস্যা দেখা দেয়।
  • অতিরিক্ত মাথা ঘামে শরীর থেকে অধিক পরিমাণ পানি নির্গত হয় এবং শরীরে ক্লান্তি চলে আসে।
  • শরীরের বিভিন্ন জায়গায় হার যেমন মাজার হার পিঠের হাড় পায়ের হাড় জয়েন্টের হার সকল হারে ব্যথা অনুভব হয়
  • শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এবং রাতে ঘুম কম হয়।

শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব দেখা দিলে উপরোক্ত লক্ষণ গুলো প্রকাশ পাবে তাই শরীরকে প্রাকৃতিকভাবে সুস্থ রাখার জন্য খাদ্য তালিকায় যুক্ত করুন ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি এবং ভিটামিন ডি যুক্ত ফল তবে আপনার শরীর সুস্থ এবং স্বাভাবিক থাকবে।

ভিটামিন ডি এর অভাব হলে করণীয়

ভিটামিন ডি এর অভাব দেখা দিলে শরীরে নানা রকমের সমস্যা দেখা দেয় কারণ শরীরের মেরুদন্ডের হাড়ের গঠনই হলো ভিটামিন ডি দিয়ে। তাই যখনই শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব দেখা দিবে আপনার শরীর কাজ করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবে। এখন অনেকেই জানেনা যে ভিটামিন ডি এর অভাব হলে করণীয় কি,

ভিটামিন ডি এর অভাব দেখা দিলে সর্বপ্রথম আপনাকে আপনার নিকটস্থ পুষ্টিবিদের সাথে আলোচনা করতে হবে এবং সেই অনুযায়ী ভিটামিন ডি এর সাপ্লিমেন্ট (supplement) নিতে হবে। এছাড়া আপনার খাদ্য তালিকায় অধিক পরিমাণ ভিটামিন বি যুক্ত খাবার যেমন সামুদ্রিক মাছ,দুধ, ডিম গরুর কলিজা, ছানা, পনির, চিজ, ঘি, মালটার জুস ইত্যাদি যে সকল খাবার আমি উপরে বলেছি সেগুলো খেতে হবে।

শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ডি সরবরাহ করার জন্য সাপ্লিমেন্ট এবং ভিটামিন বি যুক্ত শাকসবজি ভিটামিন ডি যুক্ত ফলমূল খাওয়ার পাশাপাশি আপনার শরীরকে পর্যাপ্ত পরিমাণ সূর্যের আলো লাগাতে হবে। শরীরে ভিটামিন ডি উৎপন্ন হওয়ার জন্য সকাল ১০ - ৩ টার মধ্যবর্তী সময়ে আপনি সূর্যের আলোয় ২৫ থেকে ৩০ মিনিট আপনার শরীরে লাগাবেন তাহলে আপনার শরীরে ভিটামিন ডি উৎপন্ন হতে থাকবে।

আশা করছি আপনি তাহলে বুঝতে পেরেছেন যে ভিটামিন ডি এর অভাব হলে করনীয় কি। যদি আপনার শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব দেখা দেয় তাহলে আপনি প্রথমে নিজেকে শান্ত রেখে সেই সকল খাবার খাবেন যেগুলো খেলে আপনার শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব দূর হবে এবং যেকোন রকমের দুশ্চিন্তা থেকে দূরে থাকবেন কারণ অধিক পরিমাণ দুশ্চিন্তা আপনার শরীরকে আরো খারাপ করে দিতে পারে।

লেখক এর শেষ কথা। ভিটামিন ডি এর অভাবজনিত লক্ষণ- ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি

প্রিয় পাঠক বন্ধু আজকের আলোচনার বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারণ আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু হলো ভিটামিন ডি যুক্ত শাকসবজি এবং ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয়। আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে আমি ভিটামিন ডি এর অভাবে কোন রোগ হয় এবং ভিটামিন ডি অভাব হলে করণীয় কি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করেছি। আশা করছি আপনারা আর্টিকেলটি পড়ে উপকৃত হবেন। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানতে নিয়মিত আমার স্বাগতম বিডি ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

স্বাগতম বিডিরনীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url